গবেষকদের দাবিঃ সুন্দরী নারী হার্টঅ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ায়

সুন্দরী মেয়েরা পুরুষের স্বাস্থের জন্য জন্য ক্ষতিকর বলে দাবি স্পেনিশ গবেষকদের। স্পেনের ভ্যালেন্সিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক সিদ্ধান্তে এসেছেন, সুন্দরী নারীদের কাছে আসলে পুরুষ যে মানসিক চাপ অনুভব করে তার প্রভাবে হার্টঅ্যাটাক পর্যন্ত হতে পারে।

গবেষকরা বলেন, আকর্ষণীয় নারীদের সান্নিধ্যে আসলে পুরুষের মধ্যে মানসিক চাপ বাড়তে থাকে। এই চাপ বাড়ার কারণে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যাওয়ারও আশঙ্কা রয়েছে। নয় বছর ধরে গবেষণাটি পরিচালনা করা হয়। দীর্ঘ গবেষণায় প্রচুর তথ্য বিশ্লেষণের পর ঝুঁকির বিষয়টি নিয়ে নিশ্চিত হন গবেষকরা।

জানা গেছে, সুন্দরী নারীর পাশে পাঁচ মিনিট বসলেই মানসিক চাপের প্রভাবে পুরুষের শরীরে কোর্ট্রিসল নামক বিশেষ হরমোনের প্রবাহ বেড়ে যায়। আর বিপত্তি সেখানেই। বেশি কোর্ট্রিসলের প্রবাহ হৃদযন্ত্রের ক্ষতি থেকে শুরু করে ডায়াবেটিস এমনকি পুরুষকে নপুংসক পর্যন্ত করে ফেলতে পারে।

হার্টঅ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ায় সুন্দরী নারী, গবেষণায় দাবি

পুরুষদের মধ্যে যারা নারীদের কাছ থেকে সবসময় দূরে থাকতে ভালোবাসেন, তাদের জন্য সুন্দরীরা একটু বেশি ক্ষতিকর। কারণ তারা অন্যদের তুলনায় বেশি মানসিক চাপ অনুভব করেন। ৮৪ জন স্বেচ্ছাসেবী পুরুষের ওপর গবেষণা চালিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে এই তথ্য।

কম বয়সী সুন্দরী নারী আশেপাশে দেখলে অধিকাংশ পুরুষ প্রেমের সুযোগ আছে বলে ভাবতে শুরু করেন। খুব কম পুরুষই সুন্দরীদের পাশ কাটিয়ে চলতে পারেন। যার ফলে না চাইতেও পুরুষরা প্রেমে পড়তে বাধ্য।

We will be happy to hear your thoughts

Leave a reply

Dhaka News Time