জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রেডিং সিস্টেম জেনেনিন এখান থেকে

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে প্রথম বর্ষ থেকে দ্বিতীয় বর্ষে এবং দ্বিতীয় থেকে তৃতীয় বর্ষে উন্নীত হতে শিক্ষার্থীদের কমপক্ষে ৩টি তত্ত্বীয় কোর্সে নূ্যনতম ‘ডি’ গ্রেড পেতে হবে। তৃতীয় বর্ষ থেকে চতুর্থ বর্ষে উন্নীত হওয়ার জন্য নূ্যনতম ৪টি তত্ত্বীয় কোর্সে ‘ডি’ গ্রেড পেতে হবে। এমন বিধান রেখে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রেডিং পদ্ধতিতে ফলাফল প্রকাশের রেগুলেশন করা হয়েছে।
বিশ্ববিদ্যালয় জনসংযোগ, তথ্য ও পরামর্শ দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জানান, সার্বিক শিক্ষার পরিবেশ ও শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে গ্রেডিং পদ্ধতিতে প্রমোশনসহ অন্যান্য বিষয়ে নীতিমালা করেছে। এ ক্ষেত্রে, চার বছরের বিএ, বিএসএস, বিবিএস, বিএসসি (সম্মান) শ্রেণিতে প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় বা চতুর্থ বর্ষে ‘এফ’ গ্রেড পাওয়া কোর্সগুলো ভর্তির ছয় শিক্ষাবর্ষের মধ্যে ‘ডি’ বা উচ্চতর গ্রেডে উন্নীত করতে হবে। তবে ‘এফ’ গ্রেড প্রাপ্ত কোর্স পরীক্ষার মাধ্যমে উন্নীত একজন পরীক্ষার্থী সর্বোচ্চ ই+গ্রেডের বেশি পাবে না।

আরো পড়ুন  জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ র‌্যাংকিং,আবারো দেশ সেরা রাজশাহী কলেজ
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল তথ্য সবার আগে পেতে আমাদের গ্রুপে যোগ দিন
নীতিমালায় আরো বলা হয়েছে, কোনো কোর্সে ‘এফ’ গ্রেড থাকলে পরীক্ষার্থী স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি পাবে না। তবে রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ শেষে কোনো পরীক্ষার্থী একাধিক ‘এফ’ গ্রেডসহ নূ্যনতম ১০০ ক্রেডিট অর্জন করলে তাকে পাস ডিগ্রি দেয়া হবে। ২০১২-২০১৩ শিক্ষাবর্ষের পর থেকে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের প্রত্যেক তত্ত্বীয় কোর্সের ১০০ নাম্বারের মধ্যে ইন-কোর্স পরীক্ষা ২০ শতাংশ নাম্বারে এবং তত্ত্বীয় ফাইনাল পরীক্ষা ৮০ শতাংশ নাম্বারে অনুষ্ঠিত হবে।
২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের জন্য তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষে, ২০১০-১১ ও ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষে দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের তত্ত্বীয় কোর্সে প্রতি ১০০ নাম্বারের মধ্যে ইন-কোর্স পরীক্ষা ২০ শতাংশ নাম্বারে এবং তত্ত্বীয় ফাইনাল পরীক্ষা ৮০ শতাংশ নাম্বারে অনুষ্ঠিত হবে। প্রত্যেক বর্ষের ক্লাস শুরু থেকে ১৫ সপ্তাহের মধ্যে প্রতিটি কোর্সের অর্ধেক পাঠ্যসূচি শেষ করে পঠিত অংশের ওপর কোর্স শিক্ষককে একটি ইন-কোর্স পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে। একইভাবে পরবর্তী ১৫ সপ্তাহের মধ্যে পাঠ্যসূচির বাকি অর্ধেক শেষ করে এ অংশের ওপর আর একটিসহ মোট ২টি ইন-কোর্স পরীক্ষা নিতে হবে। অভ্যন্তরীণভাবে উত্তরপত্র মূল্যায়ন করে ইন-কোর্স পরীক্ষার প্রাপ্ত নাম্বারপত্রের এক কপি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কাছে পাঠাতে হবে। এক কপি সংশ্লিষ্ট বিভাগীয়প্রধানের অফিসে সংরক্ষণ করতে হবে।
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কর্তৃক প্রদত্ত অভিন্ন গ্রেডিং পদ্ধতি অনুযায়ী গানিতিক (numerical) নম্বর, লেটার গ্রেড ও গ্রেড পয়েন্ট গণনা করে। উক্ত গ্রেডিং পয়েন্ট নিচে তুলে দেওয়া হলোঃ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রেডিং সিস্টেম

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন গ্রেডে কোন ক্লাস

Dhaka News Time