অনার্স ১ম বর্ষে আবেদনের সময় বেশি নেই, ভর্তি সম্পর্কিত সকল তথ্য পাবেন এখানে

সম্পুর্ন পোস্ট টি মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। এমন প্রশ্ন করবেন না যারর উত্তর পোস্টে দেওয়া আছে। যদি কোনো পয়েন্ট বুঝতে সমস্যা হয় তবে সেই পয়েন্ট টি উল্লেখ করে জিজ্ঞাসা করুন।

ভর্তি সম্পর্কিত যেকোনো তথ্য জানতে আমাদের গ্রুপে যুক্ত হোন

National University Admission Helpline (2019-20)

প্রশ্নঃ অনার্স ১৯-২০ সেশনের ভর্তি আবেদন কবে শুরু?

উঃ ১ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪টা থেকে শুরু এবং ১৫ সেপ্টেম্বর রাত ১১.৫৯ মিনিটে শেষ…

প্রশ্নঃ আবেদন কোথায় গিয়ে করতে হবে ?
উঃ যে সকল দোকানে অনলাইনের কাজ করা হয় ঐখানে। অভিজ্ঞ হলে আপনিও কর‌তে পা‌রেন…

প্রশ্নঃ আবেদনের সময় কী কী লাগবে ?
উঃ SSC ও HSC এর রোল ও পাশের সন এবং ১ কপি পাসপোর্ট সাইজ রঙ্গিন ছবি এবং ১টি সচল ফোন নাম্বার…

প্রশ্নঃ পাশের সাল এবং জিপিএ এর উপর কী কোনো সীমাবদ্ধতা আছে ?
উঃ জ্বী আছে। আপনার SSC ২০১৬/১৭ এবং HSC ২০১৮/১৯ সালে পাশ থাকতে হবে।১টি কম বা বেশি হলে পারবেন না। আর জিপিএ মানবিক বিভাগের ক্ষেত্রে SSC+HSC তে আলাদাভবে ২.৫০ পেতে হবে । বিজ্ঞান এবং বানিজ্য বিভাগের ক্ষেত্রে SSC তে ৩.০০ এবং HSC তে ২.৫০ পেতে হবে।(জিপিএ ৪র্থ বিষয়সহ)

প্রশ্নঃ কতটি কলেজ চয়েজ দিতে হয়?
উঃ ১টি।

প্রশ্নঃ কতটি সাবজেক্ট চয়েজ দেয়া যায় ?
উঃ যে কয়টি আপনার সামনে প্রদর্শিত হবে সব দিতে পারেন , আপনার ইচ্ছা। চাইলে ১টা ও দিতে পারেন…

প্রশ্নঃ আবেদন অন্য কেউ করে দিলে হবে না ?
উঃ নিজ কাজ নিজে করাই শ্রেয়…

প্রশ্নঃ আবেদনের সময় কত টাকা লাগে ?
উঃ ৫০ বা ১শ টাকা। নিজে কর‌লে ফ্রি…

প্রশ্নঃ আবেদনে যদি কোনো প্রকার ভুল হয় অথবা আমি আমার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করি তবে কি নতুন ভাবে আবেদন করা যাবে?

উঃ হ্যাঁ যাবে, তবে ১বার।কিন্তু ফর্মটি কলেজে জমা দিয়ে দিলে আর যাবে না…

প্রশ্নঃ আবেদনের সাথে সাথেই কি ফরম কলেজে জমা দিয়ে দিতে হবে বা কতদিন পরে কলেজে জমা দিতে হবে ?

উঃ হ্যাঁ, তবে ১তারিখ কলেজ বন্ধ থাকায় আর বিকাল ৪টা থেকে আবেদন শুরু হওয়ায় ২ তারিখ জমা দিতে হবে। জমা দেওয়ার শেষ সময়: ১৬/০৯/১৯

প্রশ্নঃ আবেদন ফর্মটি জমা দিতে নিজে যেতে হবে ?
উঃ যাওয়াটাই ভাল , না গেলেও সমস্যা নাই…

প্রশ্নঃ ফর্মটি কোথায় জমা দিব ?
উঃ যে কলেজটা চয়েজ দিছেন ঐটাতে…

প্রশ্নঃ আবেদন পত্র জমা দেয়ার সময় কি কি কাগজ নিয়ে যাবো ?
উঃ ssc ও hsc এর রেজিঃ কার্ড ও নম্বরপত্র (মার্কশীট) এর ফটো কপি এবং ২ বা ৪ কপি পাসর্পোট সাইজ ছবি।(যদি কলেজের নোটিশ বোর্ডে ছবি চায়)

প্রশ্নঃ কলেজে তো এখনো মার্কশীট আসে নাই অথবা তুলি নাই অথবা ssc এর ফটোকপিটাও নাই। তাহলে কি করবো ?

উঃ অনলাইন থেকে মার্কশীট ডাউনলোড করে ঐটা জমা দিলেও হবে…

প্রশ্নঃকাগজ গুলোকি সত্যায়িত করতে হবে ?
উঃ কলেজের নোটিশ বোর্ডে যদি কাগজপত্র সত্যায়িত করে চায় তবে দিতে হবে…

প্রশ্নঃ কাগজগুলোর কত কপি করে জমা দিতে হবে ?
উঃ ২ বা ৪ কপি করে…

প্রশ্নঃ কাগজ গুলা জমা দেয়ার সময় কি কিছু করতে হবে ?
উঃ হ্যাঁ,,, আবেদন পত্রের নির্দিষ্ট জায়গায় স্বাক্ষর ও তারিখ দিতে হবে। যেদিন জমা দিবেন সেদিনের তারিখ দিবেন, আর কলেজ আলাদা ভাবে ফোন নাম্বার চাইলে উপরে লিখতে হবে। আর আবেদন পত্রের ২ টি অংশ থাকে ,১ টি কলেজ কপি অন্যটি স্টুডেন্ট কপি । আবেদন পত্র জমা দেয়ার পর কলেজ অধ্যক্ষ আবেদনপত্রে স্বাক্ষর করে স্টুডেন্ট কপি আপনাকে ফেরত দিয়ে দিবে, আর স্টুডেন্ট কপি যত্ন সহকারে রাখবেন…

প্রশ্নঃ জমা দেয়ার পর কি কোনো
মেসেজ আসবে ?
উঃ হ্যাঁ, ১টি মেসেজ আসবে…

প্রশ্নঃ কত সময় বা দিনের মধ্যে মেসেজ টা আসবে ?
উঃ ১ থেকে ৫ দিনের মধ্যে…

প্রশ্নঃ ভাই, যদি মেসেজ না আসে ?
উঃ মেসেজ না আসলে অনলাই‌নে আপনার আই‌ডি লগইন ক‌রে দেখ‌বেন “Received” লেখা আ‌ছে কিনা। য‌দি রি‌সিভড লেখা না থাকে তাহ‌লে দ্রুত স্বশরীরে কলেজে উপস্থিত হয়ে যোগাযোগ করতে হবে…

প্রশ্নঃ আবেদন গ্রহন হয়েছে কিনা তা সিওর হওয়ার অন্য কোন পথ আছে ? মেসেজ গুলা ডিলিট হয়ে গেছে তো , তাই টেনশনে আছি।
উঃ হ্যাঁ আছে। আপনার কাছে যে আবেদন ফরম টি (কলেজে কাগজ জমা দেওয়ার পর কলেজ আপনাকে যেই স্টুডেন্ট কপিটা ফেরত দিল) আছে ওটাতে ১টি পিন ও পাসওয়ার্ড আছে। ঐটা দিয়ে NU ওয়েব সাইটে লগ ইন করলে Status – লাল রঙে Submit লেখা থাকবে। আর কলেজ আবেদন গ্রহন করলে তা সবুজ রঙে Received লেখা হয়ে যাবে…

আরো পড়ুন  অনার্স ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফরমপূরণের বিস্তারিত তথ্য

প্রশ্নঃ ভাই সেটা কোথায় গিয়ে চেক করতে পারবো ?
উঃ এই পোস্টের ১ম কমেন্ট লিংক দেয়া আছে…

প্রশ্নঃ আবেদন কলেজে জমা দিতে কত টাকা লাগবে ভাই ?
উঃ ২৫০ টাকা

প্রশ্নঃ ফর্মটা কলেজে জমা দিয়েছি মেসেজ আসছে বা আসেনি এখন কি ওটা বাতিল করা যাবে ?

উঃ না।

প্রশ্নঃ১ম মেরিটের রেজাল্ট কবে
দিবে ?
উঃ নোটিশ দিলে জানতে পারবেন…
প্রশ্নঃ নোটিশ কবে দিবে ?
উঃ আবেদন শেষের ১ থেকে ৭ দিনের মধ্যেই দিবে…

প্রশ্নঃ অনলাইনে দেখেছি এক্সেপ্ট করছে।কিন্তু মেসেজ আসে নাই।সমস্যা হবে ?
উঃ কোনো সমস্যা নেই…

প্রশ্নঃ রেজাল্ট দেখবো কিভাবে ?
উঃ রেজাল্ট মেসেজের মাধ্যমে জানতেমেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন NU<space>ATHN<space>Roll পাঠিয়ে দিন
16222নম্বরে। এখানে আবেদন ফরমের রোল নম্বর দিতে হবে। এবং এই একই পদ্ধতিতে
মেধা ও রিলিজের আবেদনের ফলাফল দেখা যাবে।

প্রশ্নঃ আমার ১ম মেরিটে যদি চান্স না হয় ?
উঃ আবার ২য় মেরিট দিবে…

প্রশ্নঃ ভাই,১ম মেরিটে চান্স পেয়েছি বাট ঐ সাবজেক্ট পছন্দ না । এখন কি হবে ?

উঃ১ম মেরিটে সুযোগ পেয়ে
আপনি যদি ভর্তি না হন তবে আর আপনার রেজাল্ট ২য় মেরিটে দিবে না।
আপনাকে রিলিজে আবেদন করা লাগবে।
প্রশ্নঃ আর যদি ২য় মেরিটেও সুযোগ পেয়ে ভর্তি না হই তবে কি আমার সিটটা থাকবে?
উঃতখন আপনাকে রিলিজ স্লিপ তুলতে হবে।আর আপনার সিট থাকবে না।

প্রশ্নঃসুযোগ পাওয়ার পর কি করবো?
উঃ সুযোগ পাওয়ার পর আপনাকে ১টি ফর্ম
অনলাইন থেকে ডাউনলোড করত হবে।আর এই ফরমটি হচ্ছে ভর্তি ফরম । এই ফর্মটিতে আপনার থানা,বাবার নাম,মায়ের নাম,মোবাইল
নাম্বর ইত্যাদি কিছু তথ্য দিতে হবে। এবং এটির ২টি কপি নামাতে হবে। ১টি হবে কলেজ কপি এবং আর ১টি হবে স্টুডেন্ট কপি।

প্রশ্নঃ মেরিট লিস্টে/১ম রিলিজে চান্স পেয়েছি। চূড়ান্ত ভর্তি ফরম ডাউনলোড করেছি
তবে ভর্তি হতে চাইনা আমি কি ১ম রিলিজে/২য় রিলেজে আবেদন করতে
পারবো ?
উঃ হ্যাঁ পারবেন।

প্রশ্নঃ মাইগ্রেশন কিভাবে করবো ?
উঃমাইগ্রেশন শুধু মাত্র ১ম ও ২য় মেরিটে
সুযোগ প্রাপ্তরাই করতে পারবে। সুযোগ পাওয়ার পর যে ফর্মটি ডাউনলোড করতে
যাবেন তখন দোকানদারকে বলবেন যে মাইগ্রেশন অপশনটা চালু রাখতে। ব্যাস কাজজ শেষ…

প্রশ্নঃমাইগ্রেশন করলে কোন সাবজেক্ট পাবো বা কি নিয়ম এটার ?
উঃ ধরুন, আপনি ৩টা সাবজেক্ট চয়েজ করেছেন।এখন ৩ বা চার নাম্বারটা
পেয়েছেন।মাইগ্রেশ করলে আপনি ২ বা ১
নম্বরটা পাবেন।আর ১নং টাই যদি আসে
তবে আর মাইগ্রেশন হবে না। মাইগ্রেশন নিচ থেকে
উপরে যায়। উপর থেকে নিচে আসে না।
আর মাইগ্রেশন করলেই যে পাবেন এমনটা কেউ বলতে পারবো না। এটা ভাগ্যের ব্যাপার…

প্রশ্নঃ মাইগ্রেশন যে করবো তার রেজাল্ট কখন দিবে ?
উঃ ২য় মেরিট বা মেধা তালিকা প্রকাশের দিন মাইগ্রেশনের রেজাল্ট অটোমেটিক মেসেজের মাধ্যমে চলে যাবে। যাদের মেসেজ যাবে না তাদের মাইগ্রেট হবে না।সার্ভার ক্রুটির কারনে মেসেজ নাও যেতে পারে । তাই ওয়েবসাইটে চেক করে নিবেন…

প্রশ্নঃ যদি মাইগ্রেশন হয় তবে কি করতে হবে ?
উঃ মাইগ্রেশন হলে আপনাকে আবার রোল পিন দিয়ে লগ ইন করে ১টা ফরম ডাউনলোড করতে হবে, এবং তা যে ডিপার্টমেন্টে চান্স পেয়েছেন ঐ ডিপার্টমেন্টে জমা দিবেন।আর কিছু না এবং টাকাও দেয়া লাগবে না…

প্রশ্নঃ মাইগ্রেট হওয়ার পর যদি আমি মত পরিবর্তন করি,যে সাবজেক্ট চান্স পেয়েছি ঐটাতে থাকি ।পারবো ?

উঃ না,কোনো ভাবেই না। যদি আপনার মাইগ্ৰেশন হয় আর আপনি ভর্তি ফরম পূরণ না করেন অর্থাৎ জমা না দেন তবে সার্কুলার অনুযায়ী আপনার ভর্তি বাতিল হয়ে যাবে। কোনো ভাবেই আপনি নিজের ইচ্ছাতে বা কলেজের ইচ্ছাতে সাবজেক্ট পরিবর্তন করতে পারবেন না…

প্রশ্নঃ মাইগ্রেশন করা কি বাধ্যতা মূলক ?
উঃ না। এটা আপনার ইচ্ছা।যদি সাবজেক্ট পছন্দ না হয় তবে মাইগ্রেশন করতে পারেন , এতে করে আপনার পছন্দ তালিকার উপরের সাবঃ পেতে পারেন । যদি আপনি মাইগ্রেশন করতে ইচ্ছুক না থাকেন তবে অব্যশই ফরম ডাউনলোডের সময় দোকানদারকে মাইগ্রেশন অপশন অফ করতে বলবেন। কারন ১বার সাবমিট হলে আর ঠিক করার চান্স নেই…

আরো পড়ুন  জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাড়পত্র/কলেজ পরিবর্তনের অনলাইনে আবেদন পদ্ধতি (ভিডিওসহ)

প্রশ্নঃ ভর্তি হতে কত টাকা লাগবে ?
উঃ একেক কলেজে একেক রকম টাকা লাগে , তবে সরকারি কলেজে ৩-৫ হাজার টাকা লাগে , নতুন সরঃ হওয়া কলেজে ৪-৬ হাজার লাগতে পারে। অন্যদিকে বেসরকারি কলেজে ৭-২০ হাজার টাকা লাগতে পারে । যারা বেসরকারি কলেজে ভর্তি আবেদন করবেন তারা আগে থেকেই ওই কলেজের সকল খরচাপাতি সম্পর্কে সরাসরি কলেজ/কলেজের ওয়েবসাইট থেকে দেখে আসবেন । কারন অনেক সময় দেখা যায় অনেকে তাড়াহুড়া করতে গিয়ে এমন এক বেসরকারি কলেজে ভর্তি হয়ে যায় , যেখানে তার পক্ষে কলেজের খরচ চালানো সম্ভব না । তাই এই দিকটা খুবই ভালভাবে দেখবেন…

প্রশ্নঃ ভর্তির সময় কি কি জমা দিতে হবে ?
উঃ কলেজ ভেদে ভিন্ন ভিন্ন ডকুমেন্টস লাগে , তবে সাধারণত নিম্নোক্ত কাগজপত্র গুলোই লাগে…

SSC ও HSCএর মূল মার্কশীট, মূল রেজিঃ কার্ড, মূল প্রশংসা পত্র,২ বা ৪ বা ৬ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি,আবেদন
ফরম, ভর্তির ফরম। এগুলোর আবার ফটো কপি ২ বা ৪টি সেট । (অনেক সরকারিতে মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড লাগে । উদাহরনঃ রংপুর সঃকলেজ ও কারমাইকেল কলেজ)।

প্রশ্নঃ ছবি যদি ভিন্ন ভিন্ন
আবেদনের সময় ১টা আর ভর্তির সময়
অন্যটা দিলে সমস্যা আছে ?
উঃ না।

প্রশ্নঃ ১ম ও ২য় মেরিটে চান্স পাইনি এখন কি করবো ?
উঃ রিলিজ স্লিপ তুলবেন।

প্রশ্নঃ রিলিজ স্লিপ কি ? খায় নাকি, মাথায় দেয় ?

উঃযারা ১ম ও ২য় মেরেটি চান্স পায় না বা পেয়েও ভর্তি হয়না তারা আবার রিলিজ স্লিপে আবেদন করবে।
[ বিঃদ্রঃ যারা প্রাথমিক আবেদন করে নাই আবার আবেদন করছে ব্যাংকে টাকা জমা দিছে তবে ফর্ম কলেজে জমা দেয়
নি তাঁরা রিলিজে আবেদন করতে পারবেন না।]
প্রশ্নঃ রিলিজে কয়টা কলেজ আবেদন করা যাবে ?

উঃ ৫টা, আপনার ইচ্ছা মত।এমনকি প্রাথমিক আবেদন যে কলেজে করেছেন
ওটাতেও। তবে ৫টাই দিতে হবে।কম’ও না বেশি’ও না , ৫ টাই।

প্রশ্নঃ কতটি সাবজেক্ট চয়েস দেয়া যাবে ?
উঃ যে কয়টা প্রদর্শিত হবে সব। চাইলে ১টাও।
প্রশ্নঃ ভাই, রিলিজ স্লিপে আবেদনের সময়
কি কিছু লাগবে ?
উঃ না, আপনার প্রাথমিক আবেদন ফর্মটাতে পিন ও রোল দোকানদারকে দিবেন বাকিটা উনাদের কাজ…

প্রশ্নঃ রিলিজ ফর্মটা কি আবার কলেজে জমা দিতে হবে ?
উঃ না, কিছু করতে হবে না। বাসায় এনে যত্ন করে রেখে দিবেন। আর কোন টাকাও দেয়া লাগবে না কলেজে।

প্রশ্নঃ চান্স পেলে কি করবো ?
উঃ উপরের দেয়া আছে কি কি কাগজ লাগবে…

প্রশ্নঃ রিলিজে চান্স পাইলে কি মাইগ্রেশন করা যাবে ? বা কলেজে পরে
সাবজেক্ট পরিবর্তন করার কোনো নোটিশ দিবে ?
উঃ না এবং না।

প্রশ্নঃযদি ১ম রিলিজে ভর্তি না হই ?
উঃ তবে ২য় রিলিজে আবেদন করবেন ঠিক ১ম রিলিজে যেভাবে আবেদন করেছেন।
কিন্তু ২য় রিলিজে সিট খালি থাকা সাপেক্ষে দিবে।আবার ৩য় রিলিজের আশায় কেউ থাইকেন না ।

প্রশ্নঃ রিলিজ ফর্ম টা ভুল বা মত পরিবর্তন করি তাহলে নতুন আবেদন করতে পারবো ?
উঃ হ্যাঁ , তবে মাত্র ১বার।

প্রশ্নঃ কিভাবে করবো ?
উঃ দোকানদারকে বল্লেই হবে।

প্রশ্নঃ আবেদনের রেজাল্ট কবে
দিবে ?
উঃ ১ম ও ২য় মেরিট,কোটা,১ম রিলিজ, ২য় রিলিজ প্রত্যেকটার রেজাল্ট আবেদনের শেষ সময় থেকে ১ থেকে ৭ দিনের মধ্যে দিয়ে থাকে। এবং পর্যায়ক্রমে ১টি ফলাফল প্রকাশ ও ভর্তি শেষ হলে পরেরটির জন্য নোটিশ দেয় ।কোনো
ভাবেই একটি কার্যক্রম চলাকালীন অপরটির আবেদন সংক্রান্ত নোটিশ প্রকাশ করা হয় না…

প্রশ্নঃ আপনি এতো কিছু জানেন কিভাবে? কয় বছরের অভিজ্ঞতা?

উঃ অনলাইন জগতে না জেনে থাকাটা নিজের ব্যর্থতা, অভিজ্ঞতা নেই, নিজেও আবেদন করবো অর্নাসের, সো বুঝতেই পারছেন, আর হ্যাঁ, সব সময় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিবেন, নিজে জেনে সব কিছু নিজের মধ্যে রেখে দিবেন না, ছড়িয়ে দিবেন প্রচার করে দিবেন সব সময়…

গুরুত্বপূর্ণ পোস্টটি শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রাখুন, সময়মত কাজে রাখতে পারে না হয় পোস্টটি হারিয়ে যেতে পারে, অন্যকে জানানোর জন্য মেনশন করুন…

অনার্স ভর্তি সম্পর্কিত যে কোন সমস্যার জন্য নিচে কমেন্টস করতে পারেন , সর্বোচ্চ সঠিক তথ্য এবং দিকনির্দেশনা দেওয়ার চেষ্টা করব। আর গ্ৰুপে আপনাদের বন্ধুবান্ধবদের জয়েন করাতে ভুলবেন না। সকলের জন্য শুভ কামনা রইল !

Image may contain: text

Image may contain: text

Dhaka News Time