টাকা না দিয়ে ফেসবুক আর কয় দিন?

ফেসবুক ব্যবসা ভালো বোঝে। বিনা পয়সায় কোনো কিছু সরাসরি আর প্রচার করবে না ফেসবুক। যাঁরা ফেসবুকে পেজ তৈরি করে বিভিন্ন স্টোরি বা খবর প্রচার করেন, সেসব প্রকাশকের জন্য নিউজফিডের সুবিধা রাখছে না ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। সোজা কথা, অর্থ না খরচ করলে পেজে পোস্ট করা স্টোরি ব্যবহারকারীদের নিউজফিডে দেখাবে না তারা। অর্থাৎ, ফেসবুকে কোনো কিছু প্রচার করতে হলে অর্থ খরচ করতেই হবে।

পেজ পাবলিশার বা প্রকাশকদের পোস্ট ছয়টি দেশের নিউজফিডে দেখানো বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক। এটিকে আপাতত পরীক্ষামূলক বলছেন ফেসবুকের কর্মকর্তারা। বিষয়টি ইতিমধ্যে পেজ প্রকাশকদের বিপদে ফেলেছে।

সম্প্রতি ফেসবুক ‘এক্সপ্লোর ফিড’ নামের নতুন একটি ফিচার চালু করেছে। এতে পরীক্ষামূলকভাবে প্রকাশক ও প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আসা কনটেন্ট মূল ফিড থেকে সরিয়ে ফেলছে ফেসবুক। এসব পোস্ট পৃথকভাবে এক্সপ্লোর ফিডে থাকবে। তবে এক্সপ্লোর ফিডগুলো নিউজফিডে দেখাবে না।

এক্সপ্লোর ফিডের লক্ষ্য হচ্ছে নতুন কনটেন্ট পোস্ট ব্যবহারকারীকে দেখানো। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, ব্যবহারকারীদের দুটি ফিড দেখানো হবে। একটিতে পরিবার, বন্ধু-বান্ধব ও অন্যটিতে প্রতিষ্ঠান ও প্রকাশকদের। শ্রীলঙ্কা, বলিভিয়া, স্লোভাকিয়া, সার্বিয়া, গুয়াতেমালা ও কম্বোডিয়াতে পরীক্ষামূলকভাবে এটি চালু হচ্ছে। তবে এখনই বৈশ্বিকভাবে এটি চালু করার কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছে ফেসবুক।

ফেসবুকের প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও ফেসবুকের ওপর নির্ভরশীল অনেক প্রতিষ্ঠান আতঙ্কে রয়েছে। কারণ, ফেসবুকের নতুন এক্সপ্লোরার ফিড সহজে খুঁজে পাওয়া যায় না। ফেসবুকের ওয়েব সংস্করণের বাঁ দিকের সারির একেবারে নিচে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে একে। আইওএস অ্যাপে এক্সপ্লোর অপশনে গিয়ে এটি খুঁজে নিতে হয়।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পেজের বিভিন্ন স্টোরি মূল ফিড থেকে সরিয়ে দেওয়ার বিষয়টি বড় ধরনের পরিবর্তন। পেজ পোস্টগুলো এক্সপ্লোর ফিডে সরিয়ে দেওয়ায় প্রকাশকদের পোস্টের ‘অর্গানিক রিচ’ দুই তৃতীয়াংশ কমে গেছে। অনলাইন প্রকাশনা প্ল্যাটফর্ম মিডিয়ামের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পৃথক এক্সপ্লোর ফিড ছয়টি দেশে পরীক্ষামূলকভাবে চালু করেছে ফেসবুক। এটি অন্য দেশে সম্পূর্ণ চালু করার ঘোষণা না এলেও যাঁরা ফেসবুকে খবর প্রচার করেন, তাঁদের জন্য সতর্কবার্তা।

নিউজফিড দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা ফেসবুকের কর্মকর্তা অ্যাডাম মোসেরি বলেন, কোনো কিছু বিষদভাবে চালু করার আগে বেশ কিছু বিষয় বিবেচনা করে ফেসবুক। মানুষ কী বলে, তারা কী চায়, তাদের মন্তব্য, লাইক, শেয়ার, তাদের অনুভূতি, সময় প্রভৃতি বিবেচনা করা হয়। সবার জন্য দুটি নিউজফিড চালু করা হবে কি না, তা এখনো বিবেচনাধীন।

ফেসবুকের লক্ষ্য হচ্ছে মানুষ ব্যক্তিগত ও পাবলিক কনটেন্ট পৃথক দেখতে চায় কি না, তা পরীক্ষা করা। ছয়টি দেশ ছাড়া অন্য কোথাও পরীক্ষা করা বা নিউজফিড বা এক্সপ্লোরে খবর দেখানোর জন্য পেজগুলোর কাছ থেকে অর্থ নেওয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই।

যে দেশগুলোতে এক্সপ্লোর নিয়ে ফেসবুকের পরীক্ষা চলছে, সেখানে নিউজফিডে শুধু বন্ধুদের পোস্ট আর বিজ্ঞাপন দেখানো হচ্ছে। ফলো করা পছন্দের পেজের হালনাগাদ পেতে এক্সপ্লোর ফিডে ক্লিক করা ছাড়া উপায় নেই। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ যা–ই বলুক না কেনো, ফেসবুক পেজের পোস্টগুলোকে পুরোনো নিউজফিডে দেখাতে অর্থ খরচ করা ছাড়া কোনো পথ খোলা রাখছে না ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ইতিমধ্যে স্লোভিনয়ার বড় ৬০টি মিডিয়া পেজের ইন্টারঅ্যাকশন (লাইক, কমেন্ট, শেয়ার) তলানিতে এসে ঠেকেছে। গুয়াতেমালা ও কম্বোডিয়াতেও একই প্রভাব পড়েছে। পরীক্ষা কত দিন চলবে, ফেসবুক তা ঘোষণা করেনি। স্লোভেনিয়ার সবচেয়ে বড় মিডিয়া সাইটের পাঠক কমে গেছে। নতুন নিউজফিড আসায় ফেসবুক ব্যবহারকারীরা তাদের কোনো পোস্ট ফেসবুকে খুঁজে পাচ্ছেন না।

বন্ধুদের জন্য শেয়ার করে দিন

About Mohammad Rony

Mohammad Rony

মোহাম্মাদ রনি, বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ও সর্বাধিক পঠিত অনলাইন ব্লগ সাইট “ঢাকা নিউজ টাইম”এর একজন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছেন। সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ঢাকা কলেজ থেকে হিসাববিজ্ঞান বিষয় নিয়ে বি.বি.এ অনার্স সম্পন্ন করছেন। তিনি পাশাপাশি “ঢাকা আইটি সলিউসন” একজন ডিজিটাল মার্কেটার এবং গ্রাফিক ডিজাইনার হিসেবেও কর্মরত রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।