পিছিয়ে পড়ছেন অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাতটি কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হওয়ার পর এখন বিপাকে পড়েছেন এসব কলেজের শিক্ষার্থীরা। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়েও প্রায় এক বছর পিছিয়ে যেতে বসেছেন ছাত্রছাত্রীরা।

লিখিত পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর ৮ মাস পার হলেও এসব ছাত্রছাত্রী পরীক্ষার ফল পাননি। কবে এই ফল প্রকাশ করা হবে সেটিও জানানো হয়নি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে। এতে বিপাকে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা। বিসিএসসহ বিভিন্ন সরকারি চাকরিতেও তারা আবেদন করতে পারছেন না। ফল প্রকাশসহ বিভিন্ন দাবি আদায়ে শিক্ষার্থীরা একের পর এক কর্মসূচি পালন করলেও সমাধান মিলছে না। তবে একটি সূত্র জানিয়েছে, এই শিক্ষার্থীদের আপাতত অ্যাপিয়ার্ড সনদ দেওয়া হবে। সহসাই মূল সনদ মিলছে না তাদের। অধিভুক্ত সাত কলেজের ২০১১-১২ সেশনের স্নাতক সম্মান চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা ৮ মাস আগে ১১ ফেব্রুয়ারি শেষ হলেও এখনো ফল প্রকাশ হয়নি। অধিভুক্ত হওয়ার পর মৌখিক পরীক্ষা শেষ হয় গত জুনে। অথচ জাতীয় বিশ্ববিদ্যায় এই পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেছে গত ১৪ মে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষে ভর্তিতে আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হলেও ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজে কবে এই ভর্তি প্রক্রিয়া চালু করা হবে সে ব্যাপারেও দেওয়া হয়নি কোনো নির্দেশনা। এতে এসব কলেজে ভর্তিচ্ছু ছাত্রছাত্রীরা বিপাকে পড়েছেন। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা ছাড়াই শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। কিন্তু ইতিমধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। কোন পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে সে ব্যাপারে কোনো নির্দেশনা না থাকায় বিপাকে পড়েছেন ভর্তিচ্ছুরা। ঢাকা কলেজের দর্শন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ফলপ্রার্থী তবিবুর রহমান বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে আগে দুই থেকে তিন বছরের সেশনজট ছিল। কিন্তু কর্তৃপক্ষের দূরদর্শী সিদ্ধান্তে ক্র্যাশ প্রোগ্রামের মাধ্যমে কলেজগুলোতে এখন কোনো জট নেই। কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত কলেজগুলো এখন সেশনজটে পড়েছে। অথচ আমাদের প্রত্যাশা ছিল, ঢাবি অধিভুক্ত হওয়ার পর আমাদের আরও অগ্রগতি হবে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইডেন কলেজের এক ছাত্রী জানান, সরকারি ব্যাংকগুলোতে প্রায় কয়েক হাজার পদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। কিন্তু ফল প্রকাশ না হওয়ায় আমরা আবেদন করতে পারছি না। শিগগিরই ফল প্রকাশ না করলে দুর্দশার শেষ থাকবে না। ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. মোয়াজ্জম হোসেন মোল্লাহ বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে অধিভুক্ত কলেজ অধ্যক্ষদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফল প্রকাশসহ অন্যান্য একাডেমি কার্যক্রমে গতি আনতে ঢাবি কর্তৃপক্ষ ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের মধ্যে একটি বৈঠকের সুপারিশ করা হয়েছে। প্রথম বর্ষে ভর্তির ব্যাপারে মোয়াজ্জম হোসেন মোল্লাহ বলেন, অক্টোবর থেকে নভেম্বর পর্যন্ত ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। ডিসেম্বরে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, নতুন একটি প্রক্রিয়া চালু করতে একটু সময় লাগছে। তাই পরীক্ষা নিতে একটু বিলম্ব হচ্ছে। কিন্তু এতে ছাত্রছাত্রীদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অধিভুক্ত এক কলেজ অধ্যক্ষ বলেন, চূড়ান্ত পরীক্ষায় অবতীর্ণ হওয়া শিক্ষার্থীদের এখন অ্যাপিয়ার্ড সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। সেগুলো দিয়ে তারা চাকরিতে আবেদন করতে পারবেন। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীতে অবস্থিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয়। এই কলেজগুলো হলো— ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজ।

বন্ধুদের জন্য শেয়ার করে দিন

About Mohammad Rony

Mohammad Rony
মোহাম্মাদ রনি, বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ও সর্বাধিক পঠিত অনলাইন ব্লগ সাইট "ঢাকা নিউজ টাইম"এর একজন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছেন। সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ঢাকা কলেজ থেকে হিসাববিজ্ঞান বিষয় নিয়ে বি.বি.এ অনার্স সম্পন্ন করছেন। তিনি পাশাপাশি "ঢাকা আইটি সলিউসন" একজন ডিজিটাল মার্কেটার এবং গ্রাফিক ডিজাইনার হিসেবেও কর্মরত রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।