অনলাইন মার্কেটপ্লেসের অভিযোগ গুলো নিয়ে বিশেষ কথোপকথন

গতবছর ডিসেম্বরের ২০ তারিখ সাদমান শাহিন নামে এক অনলাইন ক্রেতা অভিযোগ তুলেন বর্তমানে অন্যতম জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস আজকেরডিলের বিরুদ্ধে। পণ্যের অর্থ পরিশোধ করার সত্যেও পণ্য না পাওয়া। অভিযোগের বিস্তারিত পাবেন এখানে অনলাইন মার্কেটপ্লেস আজকেরডিলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গতকাল এক পিতা তার মেয়ের ইচ্ছা পুরন করতে না পেরে ক্ষোভে ফেটে পরেন। কয়েকটি জনপ্রিয় অনলাইন গণমাধ্যম খবরটি প্রচার ও করেন। বিস্তারিত পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

গত কয়েকবছরে অনলাইনে বেচাকেনা খুব দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন অনেক ক্রেতাই বিভিন্ন প্রতিকূলতার জন্য ঘরে বসেই অর্ডার করে নিজের সুবিধামত স্থানে সরবরাহ নিয়ে নিচ্ছেন। যদিও পণ্যের মূল্যর সাথে অতিরিক্ত সরবরাহ খরচ যুক্ত হয়। তবুও চাকরিজীবীদের জন্য এটি অনেক বড় সুখবর। এবার আশি আসল কথায়। যেভাবে দিন দিন এই সেক্টরে মানুষের সম্পৃক্ততা বৃদ্ধি পাচ্ছে ঠিক তেমনি বেরেছে প্রতিবন্ধকতাও। বেড়েছে অনেক অপরাধ। ক্রেতা বিক্রেতা দুই পক্ষেরই অভিযোগের শেষ নেই। সেই বিষয়ে আজ আমাদের সাথে কথা বলতে রাজি হয়েছেন এক তরুন উদ্যোক্তা। যিনি নিজেও একজন অনলাইন বিক্রেতা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই উদ্যোক্তা বর্তমানে অরবিন্দ নামক একটি অনলাইন বাজারের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন।

প্রতিনিধিঃ কেমন আছেন?

উদ্যোক্তাঃ আলহামদুলিল্লাহ্‌, আপনি কেমন আছেন?

প্রতিনিধিঃ জি, ভালো। আপনি নিশ্চয়ই গতকালের দারাজ ডট কমের রিপোর্টটি পরেছেন?

উদ্যোক্তাঃ জি, পড়েছি এবং আমি অনলাইন বাজার সমূহের পক্ষ থেকে অত্যন্ত দুঃখ প্রকাশ করছি। আসলে উনি শেষে যে কথাটা বলেছেন “একটি অর্ডারের সঙ্গে কত আবেগ, স্বপ্ন, ভালোবাসা আর আকাঙ্ক্ষা অনুক্ত থাকে তার হিসাব কি রাখে দারাজ!!” এটা আসলেই সঠিক। কিন্তু আমি এটাও বলবো ঠিক এক বিষয়টা একজনে বিক্রেতার জন্যও ঠিক। যখন একজন বিক্রেতা কোন অর্ডার পান তখন সেই অর্ডার তাকে ডেলিভারি দেয়া পর্যন্ত তাকে অনেক গুলো ধাপ পার করতে হয়। যা হয়তো একজন ক্রেতা বুঝতে পারেন না। ঠিক যদি ডেলিভারির আগ মুহূর্তে কিংবা পণ্য সরবরাহের পথে যদি ক্রেতা পণ্যের অর্ডার বাতিল করেন ঠিক একি অনুভূতি হয়। আর হ্যাঁ, এখানে যদি সরাসরি দায়টা দারাজের উপরেই যাবে কিন্তু আসলে দারাজ শুধুমাত্র একটা প্লাটফর্ম ছাড়া কিছুই না। তার কাজ অর্ডার নেয়া। অর্ডার নেবার পরে যদি বিক্রেতারা পণ্য দিতে ব্যর্থ হোন সেক্ষেত্রে দারাজের করার তেমন কিছু থাকেনা। সেক্ষেত্রে আমি ক্রেতাদের অনুরোধ করবো বড় বড় মার্কেটপ্লেসদের কাছে না গিয়ে আগে ক্ষুদ্র অনলাইন ব্যবসায়িদের দেখুন যারা নিজেদের পণ্য নিয়ে ব্যবসা করে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। আশা করছি প্রতারিত হবেন না।

প্রতিনিধিঃ আপনি কি মনে করেন বাংলাদেশে মার্কেটপ্লেসদের থেকে কি ভালো সেবা পাওয়া যাবে না?

উদ্যোক্তাঃ অবশ্যই যাবে। কিন্তু একটু সময়ের প্রয়োজন। আপনি লক্ষ্য করে দেখবেন বাহিরের দেশে বেশিরভাগ ক্রয়বিক্রয় হয় মার্কেটপ্লেস গুলো থেকেই। আমাদের দেশেও হবে। আশা করছি খুব দ্রুত এই বিভাগটি দেশের অন্যতম আয়ের উৎস হয়ে দাঁড়াবে। আমার জানামতে বাংলাদেশের অনলাইন মার্কেটকে আরো বিস্তার ঘটাতে কাজ করছে ইক্যাব (e-Commerce Association of Bangladesh)

প্রতিনিধিঃ আপনারা কি মার্কেটপ্লেস নিয়ে চিন্তা করেছেন কখনো?

উদ্যোক্তাঃ আসলে সত্যি বলতে কি মার্কেটপ্লেস অনেক বড় একটা প্লাটফর্ম। অরবিন্দ ছিলো আমাদের আইটি ফার্ম ঢাকা আইটি সলিউসনের একটা ছোট্ট প্রোজেক্ট। শেষ ৫ মাসে আমরা প্রায় ৫০০+ ক্রেতাকে সন্তুষ্ট করতে পেরেছি। প্রথম দিকে পরিবহন ও প্রাকৃতিক সমস্যার কারনে হয়তো কিছু সংখ্যক ক্রেতার সম্পূর্ণ সন্তুষ্টি অর্জন করতে সক্ষম না হলেও অদুর ভবিষ্যতে আমরা আমাদের সকল প্রতিবন্ধকতা দূর করবার দৃঢ় সঙ্কল্প করছি।

প্রতিনিধিঃ অদুর ভবিষ্যতে অরবিন্দ কি শুধুমাত্র প্রোজেক্টের মধ্যেই থাকবে?

উদ্যোক্তাঃ সেটা সময়ই বলে দিবে। ইতিমদ্ধে আমরা সকল আইনি কাগজপত্র তৈরি করেছি। যতদিন ক্রেতাদের শতভাগ সন্তুষ্ট করতে পারবো ততদিন সেবা দিয়ে যাবো, ইনশাআল্লাহ্‌।

প্রতিনিধিঃ অনলাইন বাজারকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে কি করা উচিত বলে আপনি মনে করেন?

উদ্যোক্তাঃ অনলাইন বাজারকে অনেকেই চোটও মনে করে যেটা একেবারে ভুল। একটা অনলাইন বাজার শুধু একটা এলাকা নিয়ে না, সারা দেশ ও পৃথিবীকে নিয়ে। আর আমাদের দেশে বর্তমানে মূল সমস্যা হলো পণ্য সময় মতো সরবরাহ করা। যদিও অসংখ্য প্রতিষ্ঠান ইতিমদ্ধে রয়েছে কিন্তু শতভাগ সেবা কেউ নিশ্চিত করতে পারছে না। তাই আমাদের ক্রেতা-বিক্রেতার সাথে সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এই ৩ স্তরেই উন্নতি করতে হবে। তাহলে আমাদের দেশের অনলাইন বাজারে ভবিষ্যতে আলোর মুখ দেখবে।

প্রতিনিধিঃ ধন্যবাদ, আমাদের সময় দেবার জন্য।

উদ্যোক্তাঃ আপনাকেও ধন্যবাদ।

বন্ধুদের জন্য শেয়ার করে দিন

About Dhaka News Time

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।