ক্যাটস আই ও আড়ংয়ের বিরুদ্ধে ক্রেতার অভিযোগ: অস্বীকার করলেন কর্তৃপক্ষ - Dhaka News Time
ক্যাটস আই ও আড়ংয়ের লোগো ফেসবুক পেইজ থেকে সংগৃহীত।

ক্যাটস আই ও আড়ংয়ের বিরুদ্ধে ক্রেতার অভিযোগ: অস্বীকার করলেন কর্তৃপক্ষ

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে বাংলাদেশের জনপ্রিয় ফ্যাশন হাউজ ক্যাটস আই ও আড়ংয়ের পণ্যের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলে একজন ক্রেতা অভিযোগ করে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। আর সেটি গত ২২ জুন ‘অনিয়ম’ নামে একটি পেইজ থেকে শেয়ার করা হয়েছে।

অভিযোগে তিনি লিখেছেন, ক্যাটস আই থেকে সাদা শার্ট কিনেছি ২৮০০ টাকায়। মাস ছয়েক পড়েছি প্রতি মাসে গড়ে দুই দিন। সেই হিসেবে ১২ দিন গায় দিতেই শার্ট ত্যনা হয়ে গেছে। বাংলাদেশের লোকজন এখন পণ্যের কোয়ালিটি কিনেনা ব্র্যান্ড কিনে। মূলত লোকজন ব্র্যান্ডের কাছে যায় কোয়ালিটির জন্য। পাশাপাশি ভাল ব্র্যান্ড মানে মনের শান্তি। আসলে কি তাই হয়? ব্র্যান্ড ব্যবসায়ীরা বুঝে গেছে ক্রেতারা ব্র্যান্ড কিনে সুতরাং প্রাইস আর কোয়ালিটি নিয়া টেনশনের কিছু নাই। দাম বেশি হলেও কিনবে।’

এ বিষয়ে ক্যাটস আইয়ের একজন কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম রানা ২৪ জুন দুপুরে বলেন, ‘এমন কোনো বিষয় নিয়ে এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে কেউ অভিযোগ করে নি। আর ফেসবুক তো ওপেন প্ল্যাটফর্ম। যে কেউ ইচ্ছে করলেই যা খুশি লিখতে পারে। আর যে পেইজ থেকে লেখাটি শেয়ার করা হয়ে সেটিও কেনো বিশ্বাসযোগ্য পেইজ নয়। যার কারণে অভিযোগের বিষয়টিকে আমরা সেভাবে দেখছি না। আর অনেকে আমাদের পণ্য ব্যবহার না করেও ঢালাও মন্তব্য করে ফেলেন। বিষয়টা তো ঠিক নয়।’

ট্রায়াল দিয়ে পোশাক না কেনায় মারতে এলো বিক্রয়কর্মীরা!

এদিকে একই ব্যক্তি আড়ংয়ের পণ্যের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, অভিযোগে লিখেছেন, ১৩৫০ টাকার নীল শার্ট তিন ধুয়া দিতেই মুটামুটি সাদা হয়ে গেছে।’

এ বিষয়ে আড়ংয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাদের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয় নি।

বন্ধুদের জন্য শেয়ার করে দিন

About Dhaka News Time

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।